রাশিয়ায় ঈদ উদযাপিত

মস্কোতে ঈদের নামাজ আদায় করছেন মুসুল্লিরা | ছবিঃ utro.ru

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলিম সম্প্রদায়ের ন্যায় রাশিয়ার মুসলমানরা আজ রোববার পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন।রুশ ভাষায় এ উত্সবকে বলা হয়‘কুরবান বাইরাম’ । এ দিন ধর্মপ্রান মুসলমানরা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য হজরত ইব্রাহিম (আ.)-এর নিজ সন্তানকে কোরবানি দেওয়ার ইচ্ছার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে যাঁর যাঁর সাধ্যমতো পশু কোরবানি দেবেন।

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর প্রধান মসজিদে কয়েক হাজার মুসল্লীরা আজ ভোরে ঈদের নামজ আদায় করেন।রাশিয়ার সব মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।রাশিয়ার মুফতি পরিষদের সভাপতি রাবিল গাইনুদ্দিন এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ঈদুল আজাহা আমাদেরকে মানুষের রক্তের স্রোত বন্ধ করারই শিক্ষা দেয়।রাশিয়ার মুসলমানরা এ দিন নিজ পরিবার ও দেশের মঙ্গল চেয়ে সর্বশক্তিমান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করে থাকেন’।

মস্কোতে বসবাসকারি প্রবাসী বাংলাদেশিদের অধিকাংশ মূলত  বাংলাদেশ দুতাবাসে অথবা ভেদেন খাঁর কিরগিজ প্যাভিলিয়নে ঈদের নামাজ আদায় করেন।দুতাবাসের কর্মকর্তাসহ বাংলাদেশ কমিউনিটির গন্যমান্য ব্যক্তিরা দুতাবাসে ঈদের নামাজ আদায় করেন। নামাজ শেষে বাংলাদেশের কল্যাণ ও সমৃদ্ধি চেয়ে বিশেষ  মোনাজাত করা হয়।

অন্যান্য বছরের মতো এবারও মস্কো প্রবাসী বাংলাদেশিরা এখানেই কোরবানির আয়োজন করেছেন। অনেকেই ঈদের দিন মস্কো নগরের বাইরের খামারে গিয়ে পশু জবাইয়ের প্রস্তুতি নিয়েছেন।

এদিকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ রাশিয়ার মুসলিম সম্প্রদায়কে ঈদুল আজাহা উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।রাশিয়ার মুসলিম অধ্যুষিত প্রদেশগুলোতে আজ সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

রুশ প্রেসিডেন্টের প্রেস বিভাগ থেকে প্রকাশিত অভিনন্দন বার্তায় মেদভেদেভ বলেন,‘এই প্রাচীন ধর্মীয় উত্সব ধর্মানুরাগীদেরকে ইসলামের আধ্যাত্মিক শক্তির প্রতি আহবান জানায়।এ উত্সব যা বিশ্বের সব ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা,নৈতিকতা ও মানবতাবোধকে জাগ্রত করে’ ।

প্রসঙ্গত,রাশিয়ার মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধিও লক্ষনীয়। ১৯৮৯ সালে এই দেশটিতে মুসলমানদের সংখ্যা ছিল এক কোটি বিশ লাখ।২০০২ সালে রাশিয়ার মুসলমানদের সংখ্যা এক কোটি ৪০ লাখ বলে ধরা হয়। অবশ্য অনেকে মনে করেন রাশিয়ার মুসলিম জনসংখ্যা প্রায় বিশ মিলিয়ন বা দুই কোটি।এদের মধ্যে দেড় মিলিয়ন বাস করেন শুধুমাত্র মস্কোতেই। ২০০৫ সালের আগস্ট মাসে রাশিয়ার মুফতি কাউন্সিলের প্রধান রাবিল গাইনুদ্দিন দেশটিতে ২৩ মিলিয়ন বা দুই কোটি ত্রিশ লাখ মুসলমান রয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে স্বাধীন হয়ে যাওয়া প্রজাতন্ত্রগুলোর অনেক মুসলমান রাশিয়ায় অভিবাসন করায় এ বিষয়টিও দেশটির মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে লক্ষনীয় ভূমিকা রেখেছে। ইসলাম ধর্মই রাশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্ম।

সূত্রঃরেডিও ভয়েস অব রাশিয়া,রেডিও তেহরান

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s